Breaking News
হোম > slider > বসন্তের রঙের ছোঁয়ায় শুরু দোল উৎসব।
বসন্তের রঙের ছোঁয়ায় শুরু দোল উৎসব।

বসন্তের রঙের ছোঁয়ায় শুরু দোল উৎসব।

জয়দীপ,শিলিগুড়ি:-ফাল্গুন মানে ফুল ফুটবার পুলকিত এই দিনে বন-বনান্তে কাননে কাননে পারিজাতের রঙের কোলাহলে ভরে ওঠে চারদিক। কচি পাতায় আলোর নাচনের মতই বাঙালির মনে লাগে দোলা।পলাশ, শিমুল গাছে লাগছে আগুন রঙের খেলা। প্রকৃতিতে চলছে মধুর বসন্তে সাজ সাজ রব।দোলের দুদিন বাকি থাকলেও মঙ্গলবার বসন্তের আবীরের ছোঁয়ায় শিলিগুড়ি কলেজ ও মহিলা মহাবিদ্যালয়ে শুরু হল দোল উৎসব।সারাদিন ধরে চলল নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

শীতের জীর্ণতা সরিয়ে গাছে গাছে শিমুল পলাশ।মুগ্ধ প্রকৃতির এই রূপ জানান দেয় বসন্ত এসে গেছে।কোকিলের কুহু ডাক দোলের ব্যাকুলতা কে আরও কয়েক গুণ বাড়িয়ে দেয়।এবছর আগামী বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার অর্থাৎ 1 লা ও 2 রা মার্চ দোল উৎসব।কিন্তু বসন্তের হওয়া বাঙালি কে আর ধরে রাখতে পারেনি।ফলে মঙ্গলবার থেকেই শিলিগুড়ি কলেজ ও মহিলা মহাবিদ্যালয়ে শুরু হল দোল উৎসব।এদিন শিলিগুড়ি কলেজের ছাত্র ছাত্রীরা কলেজের অধ্যক্ষ দের আবির দিয়ে প্রণাম করে শুরু করে দোল খেলার।এরপর নিজেদের মধ্যে আবিরের বিভিন্ন রঙে রাঙিয়ে তোলে।একই সঙ্গে এদিন শিলিগুড়ি মহিলা মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রীরা দোল উৎসবের আয়োজন করে কলেজ চত্ত্বরে।বীরভূমের শান্তি নিকেতনের ধাঁচে রবীন্দ্রনাথ কে অনুসরণ করে চলে নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।কলেজের ছাত্রীরা প্রত্যেকে লাল হলুদ শাড়ি পরে শিমুল পলাশ ফুলে নিজেদের সাজিয়ে তোলে।অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিল রবীন্দ্র নৃত্য, গান ও নাটক।কলেজ ছাত্রীদের থেকে জানাযায় গত দুই বছর ধরে মহাবিদ্যালয়ে এই বসন্ত উৎসব পালন করা হচ্ছে।উৎসবের নাম দেওয়া হয়েছে “রাঙিয়ে দিয়ে যাও”।মহিলা মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রী সংসদের সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রানী সরকার জানান গত দু বছর থেকে কলেজে এই বসন্ত উৎসব করা হচ্ছে।কারন বসন্ত কে কেন্দ্র করে শান্তি নিকেতনে নানা অনুষ্ঠান হয় যা শিলিগুড়ি মানুষের পক্ষে অনেক ক্ষেত্রে সম্ভব হয়ে উঠেনা শান্তি নিকেতন যাওয়া। তাই বসন্তের এই রঙিন দিনে যাতে কলেজের ছাত্রীরা কিছুটা হলেও শান্তিনিকেতনের স্বাদ পায় তাই এই উৎসবের আয়োজন।অন্যদিকে মহিলা মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রীরা এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পেরে যথেষ্ট খুশি। ছাত্রীদের কথায় এই ধরণের উৎসব কলেজে হওয়ায় বসন্তের রঙিন ছোঁয়া কিছুটা অন্যরকম ভাবে উপলব্ধি করা গেল। তাছাড়াও সারাবছর সিলেবাসের চাপে থেকে বছরের শুধু এই দিনটা নিজেদের পুরনো অভিমান ভুলে রঙের স্পর্শে এক হওয়া যায়।

আরও দেখুন

স্কুলেই দুই রাধুনির হাতাহাতি, বন্ধ মিড ডে মিল

স্কুলেই দুই রাধুনির হাতাহাতি, বন্ধ মিড ডে মিল

উত্তর দিনাজপুরঃ দুই রাঁধুনি গোষ্ঠির কাজিয়ায় বন্ধ হয়ে গেল স্কুল ও শিশু শিক্ষাকেন্দ্র। ঘটনাটি ঘটেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *