Breaking News
হোম > slider > চাকরি না পেয়ে নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ যুবকের। লজ্জা ঢাকতে এগিয়ে এলেন সাংবাদিক।
চাকরি না পেয়ে নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ যুবকের। লজ্জা ঢাকতে এগিয়ে এলেন সাংবাদিক।

চাকরি না পেয়ে নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ যুবকের। লজ্জা ঢাকতে এগিয়ে এলেন সাংবাদিক।

আলিপুরদুয়ারঃ এম এ পাস করে চাকরি তো দূরের কথা বাবার মৃত্যুর পর সেই চাকরিও না পেয়ে নগ্ন হয়ে পথে ঘুরে প্রতিবাদ জানাল আলিপুরদুয়ারের এক যুবক। শনিবার দুপুরে ব্যস্ততম আলিপুরদুয়ারে ওই যুবক নগ্ন অবস্থায় ঘুরছিলেন। যুবকটিকে ওই অবস্থায় দেখেও তথাকথিত শিক্ষিতসমাজের কেউ এগিয়ে আসেনি। যদিও যুবকের চেহারা দেখে কোনোমতেই ভবঘুরে বলে মনে হচ্ছিলনা। ওইসময় ওই ব্যস্ততম এলাকায় প্রচুর মানুষ রাস্তায় ছিলেন। তবে কেউ কেন এগিয়ে এলোনা তাই নিয়েও উঠছে মানবিকতার প্রশ্ন। এদিন ওই পথে নিজের কাজে বেরিয়ে ছিলেন পূর্বোত্তরের সাংবাদিক রতন বর্মন। তিনিই প্রথম ওই যুবককপ দেখতে পান এবং যুবকের চেহারা দেখে তার মনে প্রশ্ন জাগে। এরপর তিনি বিষয়টি “মানবিক মুখ” নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কর্মীদের জানান। খবর পেয়ে ওই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সম্পাদক রাতুল বিশ্বাস ও অন্যান্য কর্মীরা পুলিশের সংযোগীতায় ওই যুবককে উদ্ধার করেন। আলিপুরদুয়ার থানার থেকে পুলিশ এসে ওই যুবককে কাপড় পরিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে জানায় তার নাম রবীন্দ্রনাথ ডাকুয়া। বাড়ি কোচবিহার জেলার তুফানগঞ্জ এলাকায় দমনপুর গ্রামে। সে এম এ পাশ করেছে কিন্তু তার কোনো চাকরি হচ্ছেনা। চাকরির জন্য একাধিকবার বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে খালি হাতে ফিরতে হয়েছে। তাই আজ এরই প্রতিবাদ করতে বাধ্য হয়ে নগ্ন হয়ে সে পথে নেমেছে। পরে সাংবাদিক রতন বর্মন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সহযোগিতায় যুবককে তার দিদির কাছে তুলে দিয়ে আসেন। যুবকের দিদি ও জামাইবাবু জানিয়েছেন রবীন্দ্রনাথ নার্ভের অসুখে দীর্ঘদিন ধরেই ভুগছিল। তার মাথার ঠিক নেই,এছাড়াও তিনি জানান তাদের বাবা বনদপ্তরে চাকরি করতেন। চাকুরীরত অবস্হাতেই তিনি মাটা যান। বাবার চাকরি ভাই পেতে পারে সেই আশায় ও আবেগে হয়তো সে এরকম কাজ করে ফেলেছে।

তবে এক্ষেত্রে একটা প্রশ্ন সবার মনে বারবার ঘুরপাক খাচ্ছে! যুবকের এই ঘটনা দেখে কেন পথ চলতি সাধারণ মানুষ এগিয়ে এলো না? একজন মানুষতো চাইলেই পারতেন যুবকে নগ্নতা থেকে বাঁচাতে। ঠিক যেমন করে এগিয়ে এলেন একজন সাংবাদিক। সবশেষে এই কথা বলে রাখাও ভালো শুধু সংবাদ পরিবেশন ছাড়াও সাংবাদিকদের যে সমাজে একটা বিরাট ভূমিকা আছে তার নিদর্শন এদিনের এই ঘটনা আরও একবার তার প্রমাণ রাখলো।

আরও দেখুন

স্কুলেই দুই রাধুনির হাতাহাতি, বন্ধ মিড ডে মিল

স্কুলেই দুই রাধুনির হাতাহাতি, বন্ধ মিড ডে মিল

উত্তর দিনাজপুরঃ দুই রাঁধুনি গোষ্ঠির কাজিয়ায় বন্ধ হয়ে গেল স্কুল ও শিশু শিক্ষাকেন্দ্র। ঘটনাটি ঘটেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *