Breaking News
হোম > ePaper > চেনা পাহাড়ের নতুন ঠিকানা,প্রকৃতির স্পর্শের সাথে আবছ চোখে ধরাদিচ্ছে নেপাল
চেনা পাহাড়ের নতুন ঠিকানা,প্রকৃতির স্পর্শের সাথে আবছ চোখে ধরাদিচ্ছে নেপাল

চেনা পাহাড়ের নতুন ঠিকানা,প্রকৃতির স্পর্শের সাথে আবছ চোখে ধরাদিচ্ছে নেপাল

কার্শিয়াং:--রোজকার ব্যস্ততার ফুরসতে একটু জিরিয়ে নিতে চান? চান বাড়তি অক্সিজেন? খাদের ধারে রেলিংয়ের পাশে অপেক্ষায় আছে অল্লিতা। অপেক্ষায় আছে মনোহরা দার্জিলিং এর কার্শিয়াং।এখনে চোখ মিললে দেখা যাবে পাহাড়ের মুগ্ধতা ও আবছা নেপাল।তাই আর দেরি না করে আজই চলে আসুন পাহাড়ের প্রকৃতির নানা রঙে মিশে যেতে।

ভ্রমণপিপাসু বাংলার বাঙালির ঘোরার কথা মাথায় এলেই প্রথমে আসে পাহাড় নয় সমুদ্র।সেই ক্ষেত্রে পাহাড় হলে দার্জিলিং আর সমুদ্র হলে দীঘা কিংবা পুরী। কিন্তু এই চেনা দার্জিলিং এর এমন কিছু অচেনা জায়গা রয়েছে যা একবার চোখে দেখলে নিজেকে হার মানাবে।পাহাড়ি রাণী দার্জিলিং এর কার্সিয়াং মহকুমায় এমনই এক জায়গার সন্ধান দিল “অল্লিতা” নামে এক রিসোর্ট। আঁকা বাঁকা পাহাড়ি দুর্গম পথ পেরিয়ে গিদ্দা পাহাড়ের এই রিসোর্টে পৌঁছালে দেখা মিলবে পাহাড়ের প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য।তেমনি দেখা মিলবে প্রকৃতির নানা রূপের হাতছানি।সমতল থেকে প্রায় 8 হাজার ফুট উচ্চতায় মোট 22 একর জমির উপর গড়ে তোলা হয়েছে এই রিসোর্টটি। ব্যস্ত জীবনের রোজনামচা থেকে বেরিয়ে এসে যারা প্রকৃতির সাথে একটু অন্য ভাবে কাটাতে চান তাদের জন্য এই রিসোর্টে রয়েছে ভরপুর রসদ। এখনে একদিকে যেমন পাহাড়ি সৌন্দর্যের সাক্ষী থাকা যাবে তেমনি এখনে পর্যটকদের জন্য মিলবে রিসোর্টে চাষ করা জৈব সক সবজির খাবার। বুধবার আলিতা রিসোর্টের পক্ষে পঙ্কজ পারেখ সাংবাদিক বৈঠক করে জানান মূলত পর্যটকদের পাহাড়ে চেনা ছন্দ থেকে একটু অন্যরকমের অনুমতি দিতে গড়ে তোলা হয়েছে এই রিসোর্টটি।এতে বিনোদন ব্যবস্থা যেমন থাকছে তেমনি প্রকৃতির সৌন্দর্য উপলব্ধি করার জন্য রয়েছে বেশ কিছু স্থান । এছাড়াও যাতে সব ধরনের পর্যটকরা এই রিসোর্টে আসতে পারেন সেই জন্য ভাড়া রাখা হয়েছে নাগালের মধ্যে। বুধবার ভারতের বিশিষ্ট ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পালের উপস্থিতিতে পথ চলা শুরু করলো “অল্লিতা রিসোর্ট”।এদিন প্রথম দিনও দেশি-বিদেশি পর্যটকরা উপস্থিত নেহাতই কম ছিলনা।

আরও দেখুন

স্কুলেই দুই রাধুনির হাতাহাতি, বন্ধ মিড ডে মিল

স্কুলেই দুই রাধুনির হাতাহাতি, বন্ধ মিড ডে মিল

উত্তর দিনাজপুরঃ দুই রাঁধুনি গোষ্ঠির কাজিয়ায় বন্ধ হয়ে গেল স্কুল ও শিশু শিক্ষাকেন্দ্র। ঘটনাটি ঘটেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *